ট্যালেন্ট হান্ট – ২০২০

Share on social media

পুরো বিশ্বটাই যেনো করোনার প্রভাবে ঘরবন্দী। এই কোয়ারেন্টিনে ঘরে থাকা তরুণ-তরুণীদের একঘেয়েমি থেকে মুক্তি দিতেই কোয়ারেন্টিন পিরিয়ডকে  ফলপ্রসূ করতে “এসো পৃথিবীকে জানাই” এই স্লোগানে  ”চুয়েট ক্যারিয়ার ক্লাব”  আয়োজন করেছে ‘ট্যালেন্ট হান্ট ২০২০’ শীর্ষক প্রতিযোগিতা।

কী রয়েছে এই প্রতিযোগিতায় ?

  • প্রেজেন্টেশন কনটেস্ট
  • কেইস সলভিং কনটেস্ট
  • পোস্টার ডিজাইন কনটেস্ট
  • প্রোগ্রামিং কনটেস্ট

এ চারটি বিভাগে অনুষ্ঠিত হওয়া এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীদের প্রত্যেককেই প্রদান করা হবে সার্টিফিকেট, এছাড়াও বিজয়ীদের জন্য রয়েছে অ্যাওয়ার্ড সার্টিফিকেট ও প্রাইজ মানি।

প্রেজেন্টেশন কনটেস্ট, কেইস সলভিং কনটেস্ট, পোস্টার ডিজাইন কনটেস্ট- এই তিনটি প্রতিযোগিতা আন্ত-বিশ্ববিদ্যালয় ভিত্তিক এবং প্রোগ্রামিং কনটেস্ট প্রতিযোগিতাটি অন্ত-বিশ্ববিদ্যালয় ভিত্তিক অনুষ্ঠিত হবে। চলমান করোনা পরিস্থিতির কারণে এই  বছর ট্যালেন্ট হান্ট অনলাইনে গুগল মিট অ্যাপের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হবে। রেজিস্ট্রেশন করার জন্য অংশগ্রহণকারীকে প্রথমে বিকাশে পেমেন্ট করতে হবে (বিকাশ নম্বর:০১৮৭০০৪৬৫৭২)। তারপর গুগল ফর্ম পূরণ করতে হবে। রেজিস্ট্রেশনের শেষ সময়: ৩১ অক্টোবর,২০২০।

ভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সমন্বয়েও দল গঠন করে  কনটেস্টে অংশ নেওয়া যাবে। অংশগ্রহণকারীরা একাধিক ইভেন্টেও চাইলে অংশ নিতে পারবে।

রেজিস্ট্রেশনের বিস্তারিতএইলিংকে দেওয়া আছে Click here to get registered

প্রেজেন্টেশন কনটেস্ট

  • প্রেজেন্টেশন কনটেস্ট একটি আন্ত-বিশ্ববিদ্যালয় ভিত্তিক প্রতিযোগিতা। প্রত্যেকটি দল ২ জন সদস্যের সমন্বয়ে গঠন করতে হবে।
  • রেজিস্ট্রেশন ফি: ৫০০ টাকা
  • প্রেজেন্টেশন কনটেস্ট দুই রাউন্ডে অনুষ্ঠিত হবে (প্রিলিমিনারি এবং ফাইনাল রাউন্ড)। প্রেজেন্টেশন চারটি বিষয়ের উপর হবে এবং বিষয়গুলো ওয়েবসাইট ও ফেসবুক ইভেন্টের মাধ্যমে জানানো হবে।
  •  অংশগ্রহণকারীদের প্রিলিমিনারি রাউন্ডে যে কোনো একটি বিষয়ের উপর গুগল মিট -এর মাধ্যমে প্রেজেন্টেশন দিতে হবে।
  • পরবর্তীতে ফাইনাল রাউন্ডের জন্য ছয়টি দল নির্বাচন করা হবে এবং ফাইনাল রাউন্ডের প্রস্তুতির জন্য শুধুমাত্র এক ঘণ্টা সময় দেওয়া হবে। ফাইনাল কনটেস্টেন্টদের এক ঘণ্টার মধ্যে বাকি তিনটি বিষয়ের মধ্যে যে কোনো একটি বিষয়ের উপর প্রেজেন্টেশন দিতে হবে।
  • প্রত্যেক দল প্রেজেন্টেশনের জন্য পাঁচ মিনিট করে পাবে। প্রেজেন্টেশন অবশ্যই ইংরেজি মাধ্যমে দিতে হবে।
  • প্রিলিমিনারি রাউন্ডে কোনো প্রশ্ন-উত্তর পর্বের জন্য সময বরাদ্দ থাকবে না। ফাইনাল রাউন্ডে প্রশ্ন-উত্তর পর্বের তিন মিনিট সময বরাদ্দ থাকবে।
  • রেজিস্ট্রেশনকৃত প্রত্যেক দলকে ৩ নভেম্বর ২০২০ এর মধ্যে প্রেজেন্টেশন স্লাইড জমা দিতে হবে। অন্যথায় রেজিস্ট্রেশন বাতিল গণ্য করা হবে।
  • স্লাইডের ফন্ট, ব্যাকগ্রাউণ্ড কালার, প্রাসঙ্গিক তথ্য ও ছবির ভিত্তিতে প্রেজেন্টেশন নির্বাচন করা হবে।
  • প্রিলিমিনারি এবং ফাইনাল রাউন্ড ৩০ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে।

প্রেজেন্টেশন কনটেস্টের বিষয়াবলি

  • Technological evolution and hindrances to children’s physical and mental growth.
  •  Emersion of Teen-Gang Culture in Bangladesh: Threat to social norm & ethics.
  • Failure & Negligence in Health Sector Worldwide: COVID – 19, an eye-opening disaster.
  • The horrors of Rape: How can we stem the tide of sexual harassment and abuse?

কেইস সলভিং কনটেস্ট

  • কেইস সলভিং কনটেস্ট একটি আন্ত-বিশ্ববিদ্যালয় ভিত্তিক প্রতিযোগিতা। প্রত্যেক দল সর্বোচ্চ ৩ জন সদস্যের সমন্বয়ে গঠন করতে হবে।
  • রেজিস্ট্রেশন ফি: ৬০০ টাকা।
  • কনটেস্ট এক রাউন্ডে অনুষ্ঠিত হবে যার মাধ্যমে বিচারকগণ চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স্-আপ নির্বাচন করবেন।
  • অংশগ্রহণকারীদেরকে গুগল মিটের মাধ্যমে কেইস-সল্যুশন ভিত্তিক প্রেজেন্টেশন অবশ্যই ইংরেজি মাধ্যমে দিতে হবে।
  • রেজিস্ট্রেশনকৃত প্রত্যেক দলকে ৩ নভেম্বর ২০২০ মধ্যে প্রেজেন্টেশন স্লাইড জমা দিতে হবে। অন্যথায় রেজিস্ট্রেশন বাতিল গণ্য করা হবে।
  • স্লাইডের ফন্ট, ব্যাকগ্রাউণ্ড কালার, প্রাসঙ্গিক তথ্য ও ছবির ভিত্তিতে প্রেজেন্টেশন নির্বাচন করা হবে।
  • চূড়ান্ত ফলাফল ৭ নভেম্বর ২০২০
  • বিস্তারিত কেইস সলভিং এর রুলবুকে দেয়া আছে।

Cilck Here to Download the Case Rulebook

পোস্টার ডিজাইন কনটেস্ট

  • পোস্টার ডিজাইন কনটেস্ট একটি আন্ত-বিশ্ববিদ্যালয় ভিত্তিক একক প্রতিযোগিতা।
  • রেজিস্ট্রেশন ফি: ২০০ টাকা
  • অংশগ্রহণকারীদেরকে তাদের  ডিজাইন ডেডলাইন সময়সীমা (২৬ অক্টোবর) এর মধ্যে JPG/PNG এবং .ai/.psd- উভয় ফরম্যাটে সাবমিট করতে হবে।
  • বিষয়: দেশব্যাপী করোনা পরিস্থিতিতে পাবলিক প্লেসে ব্যক্তিগত পরিচ্ছন্নতায় সচেতনতা বৃদ্ধি।
  • লোগো ডাউনরোড লিংক: Click here to dowload the logo
  • চূড়ান্ত ফলাফল ৭ নভেম্বর ২০২০

প্রোগ্রামিং কনটেস্ট

  • প্রোগ্রামিং কনটেস্ট একটি অন্ত-বিশ্ববিদ্যালয় ভিত্তিক একক প্রতিযোগিতা।
  • রেজিস্ট্রেশন ফি: ২০০ টাকা।
  • কনটেস্ট সময়সীমা তিন ঘণ্টা ।
  • কনটেস্ট প্লাটফর্ম : Vjudge
  • কন্টেস্ট 5 নভেম্বর ২০২০ তারিখে অনুষ্ঠিত হবে।
  • চূড়ান্ত ফলাফল ৭ নভেম্বর ২০২০

আগামী ৭ নভেম্বর ২০২০ তারিখে সন্ধ্যা ৮.৩০ মিনিটে অনলাইন মিটিং প্ল্যাটফর্ম গুগল মিটের মাধ্যমে চারটি প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হবে, সাথে থাকছে অভিজ্ঞদের কাছ থেকে ক্যারিয়ার সচেতনতা বিষয়ক পরামর্শ নেয়ার সুযোগ। 

সর্বোপরি লেখাপড়ার পাশাপাশি অন্যান্য ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের প্রতিভা বিকাশে এবং তাদের মেধা বিচ্ছুরণে সহায়ক ভূমিকা পালন করতে ”চুয়েট ক্যারিয়ার ক্লাব”  বদ্ধপরিকর। ২০১৬ সালের মার্চ মাস থেকে যাত্রা শুরু করে মাত্র কয়েক বছরের মধ্যেই তাদের কাজের মাধ্যমে সুনাম কুড়িয়েছে ক্লাবটি, একজন সদ্য গ্র্যাজুয়েট জীবনে যতগুলো পথ অবলম্বন করে তার ক্যারিয়ার গড়ে তুলতে পারে, তাঁর সবকটি নিয়েই গঠিত তাদের ৫ টি উইং। প্রেজেন্টেশন উইং, বিসিএস উইং, হায়ার স্টাডি উইং, এন্টারপ্রিনারশিপ উইং এবং রিসার্চ উইং।

ট্যালেন্ট হান্ট, চুয়েট ক্যারিয়ার ক্লাবের অন্যতম একটি সেগনেচারি ইভেন্ট যার মাধ্যমে প্রতিটি  শিক্ষার্থীর মাঝে  প্রতিভা উন্মোচিত হবে ও ভবিষ্যৎ নেতৃত্বদানে ভূমিকা রাখবে।

Durra Tarannum
Executive Member
CUET Career Club



ফ্রিকুয়েন্টলি আস্কড কোশ্চেনস (FAQ) – ট্যালেন্ট হান্ট ২০২0

প্রতিযোগিতার আয়োজকবর্গ ব্যতীত স্নাতক/ স্নাতকোত্তর পর্যায়ের যে কোন ব্যাচের (১ম বর্ষ থেকে শেষ বর্ষ) যে কোন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করতে পারবে। শুধু প্রোগ্রামিং কন্টেস্টে চুয়েটের ব্যাতিত অন্য কোন ভার্সিটির স্টউডেন্ট অংশগ্রহন করতে পারবে না।
প্রেজেন্টেশন ৫০০ টাকা, কেস সলভিং ৬০০ টাকা, প্রোগ্রামিং ২০০ টাকা, পোস্টার ডিজাইন ২০০ টাকা
৩০,০০০ টাকা
সবাই পারটিসিপেশন সার্টিফিকেট পাবে। Priyoshop.com এ শপিং এ ২০০ টাকা পর্যন্ত ডিস্কাউন্ট পাবে সব পার্টিসিপেন্টই । উইনারদের জন্যে থাকছে Priyoshop.com এর পক্ষ থেকে স্পেসাল গিফট।
রেজিস্টেশন ডেডলাইনঃ ৩১ অক্টোবর ২০২০ , স্লাইড সাবমিশন ডেডলাইনঃ ৩ নভেম্বর ২০২০


Share on social media

Leave a Reply

Close Menu